জোহরের চার রাকাত ফরজ এবং সুন্নত নামাজের নিয়ম

 জোহরের চার রাকাত ফরজ এবং সুন্নত নামাজের নিয়ম।জোহরের চার রাকাত সুন্নত নামাজের নিয়ম



হ্যালো আজকে আপনাদেরকে জানাবো জোহর নামাজের চার রাকাত ফরজ নামাজ কিভাবে পড়তে হয় এবং চার রাকাত সুন্নত নামাজ কিভাবে পড়তে হয় তা আজকে আমাদের এই পোস্ট থেকে আশাকরি সবাই জানতে পারবে না আর আমাদের লেখায় যদি কোন ভুল থাকে অবশ্যই কমেন্টে আমাদেরকে সবাই জানাবেন




জোহরের চার রাকাত ফরজ নামাজের নিয়ম

৪ রাকাত ফরজ নামাজ পড়ার নিয়ম হলোঃ নিয়ত করতে হবে, (নাওয়াইতু আন উসাল্লিয়া লিল্লাহিতায়ালা আরবা রাকাতাই সালাতি যোহরি ফারদুল্লাহি তায়ালা মুতাওয়াজ্জিহান ইলা জিহাতিল ক্বাবাতিশ শারিফাতি আল্লাহু আকবার) বলে রাকাত বাধতে হবে।


দুই হাত কাধ বরাবর নিয়ে যাতে হাতের তালু দুইটি কাবার দিকে থাকে তার পর হাত নামিয়ে নাভির নিচে অথবা নাভির উপরে বাধতে হবে ।পড়তে হবে (সুবহানাকা আল্লাহুম্মা বিহামদিকা উতাওয়া রাকাসমুকা উয়াতায়ালা জাদ্দুকা উয়ালা ইলাহা গাইরুক) ।


প্রথম রাকাত


তারপর সুরা ফাতিহা পড়তে হবে (আলহামদু লিল্লাহি রাব্বিল আলামিন, আররাহমানির রাহিম, মা-লিকিয়াউ মিদ্দিন, ইয়া কানা’ বুদু উয়া ইয়া কানাসতায়িন, ইহদিনাসসিরাতাল মুস্তাকিম, সইরা ত্বাল্লাজিনা আন আম তায়ালাইহিম, ঘাইরিল মাগদু বিয়ালাইহিম, উয়ালাদ্দুয়াল্লিন,) আমিন।


এরপর যে কোন একটি সূরা পড়তে হবে। তারপর আল্লাহু আকবার বলে রুকুতে যেতে হবে। রুকুতে গিয়ে পড়তে হবে {সুবহানা রাব্বিয়াল আযিম (৩বার উত্তম, বেশি পড়লে ভাল)} সামিয়াল্লাহুলিমান হামিদা বলে রুকু থেকে উটতে হবে। এবং সোজা হয়ে দাড়াতে হবে।


আবার আল্লহু আকবার বলে সিজদায় যেতে হবে। (সিজদার নিয়ম হচ্চে প্রথমে পায়ের পাতা থেকে কোমর পর্যন্ত সোজা রেখে দেহটাকে নিচের দিকে ঝুকিয়ে পরবর্তিতে হাটু ঝুকিয়ে প্রথমে নাক পরে কপাল মাঠিতে লাগানো) সিজদায় গিয়ে পড়তে হবে (সুবহানা রাব্বিয়াল আলা, ঠিক আগের মতো, ৩বার উত্তম, বেশি পড়লে ভাল) । আল্লাহু আকবার বলে সিজদাহ থেকে বসা অবস্তায় তারপর আবার সিজদায় যেতে হবে। আগের মতোই বলতে হবে। তারপর আল্লাহু আকবার বলে দাড়িয়ে যেতে হবে।


দ্বিতীয় রাকাত


আবার ঠিক আগের মতোই সূরা ফাতিহা এবং তার সাথে মিলিয়ে যে কোন একটি সুরা পড়তে হবে। তারপর রুকুতে যেতে হবে রুকু গিয়ে (সুবহানা রাব্বিয়াল আযিম) তারপর সামিয়াল্লাহুলিমান হামিদা বলে দাড়াতে হবে।


আল্লাহু আকবার বলে সিজদায় যেতে হবে। সিজদায় গিয়ে ঠিক আগের মতোই (সুবহানা রাব্বিয়াল আলা) তারপর আল্লাহু আকবার বলে প্রথম বার তারপর দ্বিতীয় বার । এখন দ্বিতীয় বারে দ্বিতীয় রাকাতে বসে পড়তে হবে।


বসে পড়তে হবে (আত্তাহিয়াতু লিল্লাহি উয়াসসালাউয়াতু উয়াত্তাইয়িবাতি আসসালামু আলাইকা আইয়ু হান্নাবিয়ু উউয়া রাহমাতুল্লাহি উয়া বারাকাতুহু আসসালামু আলাইনা আলা ইবাদিল্লাহিস সুয়ালিহিন, আসহাদু আল্লাহ ইলাহা ইল্লাল্লাহু উয়া আসহাদু আন্না মুহাম্মাদান আবদু হুয়া রাসুলুহু) প্রতিয়মান আসহাদু আল্লআহ ইলাহা বলে শাহাদাত আঙ্গুলি উপরের দিকে ধাবমান করতে হবে।


তারপর দাঁড়িয়ে যেতে হবে তৃতীয় রাকাতে শুধু সুরা ফাতিহা পরে রুকু সিজদাহ করতে হবে। রুকু সিজদাহ করে আবার দাঁড়িয়ে যেতে হবে আবার সুরা ফাতিহা পরে রুকু সিজদাহ করতে হবে। একই ভাবে চতুর্থ রাকাত পড়তে হবে।


শেষ বৈঠক


চার রাকাতের সময় বসে পড়তে হবে (আত্তাহিয়াতু লিল্লাহি উয়াসসালাউয়াতু উয়াত্তাইয়িবাতি আসসালামু আলাইকা আইয়ু হান্নাবিয়ু উউয়া রাহমাতুল্লাহি উয়া বারাকাতুহু আসসালামু আলাইনা আলা ইবাদিল্লাহিস সুয়ালিহিন, আসহাদু আল্লাহ ইলাহা ইল্লাল্লাহু উয়া আসহাদু আন্না মুহাম্মাদান আবদু হুয়া রাসুলুহু) প্রতিয়মান আসহাদু আল্লআহ ইলাহা বলে শাহাদাত আঙ্গুলি উপরের দিকে ধাবমান করতে হবে।


(আল্লাহুম্মা সাল্লিয়ালা মুহাম্মাদিউ উয়ালা আলি মুহাম্মাদ কামা সাল্লাইতা আলা ইব্রাহিমা উয়ালা আলি ইব্রাহিম ইন্নাকা হামিদুম্মাজিদ)


(আল্লাহুম্ম বারিক আলা মুহাম্মাদিউ উয়ালা আলি মুহাম্মাদ কামা বারাক তা আলা ইব্রাহিমা উয়ালা আলি ইব্রাহিম ইন্নাকা হামিদুম্মাজিদ)


(আল্লাহুম্মা ইন্নি জালামতু নাফসি জুলমান কাছিরা উয়ালা ইয়াগফিরু জুনুবা ইল্লা আনতা ফাগফিরিলি মাগফিরাতাম মিন হিমদিকা উয়ার হামনি ইন্নাকা আনতাল গাফুরুররাহিম) বলে সালাম ফিরাতে হবে।


প্রথমে আসসালামুয়ালাইকুম উয়া রাহমাতুল্লাহ বলে ডান দিকে পরে বাম দিকে মস্তক ঘুরাতে হবে ।



জোহরের চার রাকাত সুন্নত নামাজের নিয়ম


রাকাত সুন্নত নামাজ পড়ার নিয়ম হলোঃ প্রথমে অজু করে জায়নামাজে দাড়াতে হবে।জায়নামাজের দোয়া পরতে হবে। (ইন্নি উয়াজ্জাহতু উয়াজহিয়া লিল্লাজি ফাতারাসসামাওয়াতি উয়াল আরদ্বি হানিফা উয়ামা আনা মিনাল মুশরিকিন) ।


প্রথম রাকাত


তারপর নিয়ত করতে হবে, (নাওয়াইতু আন উসাল্লিয়া লিল্লাহিতায়ালা আরবা রাকাতাই সালাতি যোহরি সুন্নাতু রাসুলিল্লাহি তায়ালা মুতাওয়াজ্জিহান ইলা জিহাতিল ক্বাবাতিশ শারিফাতি আল্লাহু আকবার) বলে রাকাত বাধতে হবে।


দুই হাত কাধ বরাবর নিয়ে যাতে হাতের তালু দুইটি কাবার দিকে থাকে তার পর হাত নামিয়ে নাভির নিচে অথবা নাভির উপরে বাধতে হবে ।পড়তে হবে (সুবহানাকা আল্লাহুম্মা বিহামদিকা উতাওয়া রাকাসমুকা উয়াতায়ালা জাদ্দুকা উয়ালা ইলাহা গাইরুক) ।


তারপর সুরা ফাতিহা পড়তে হবে (আলহামদু লিল্লাহি রাব্বিল আলামিন, আররাহমানির রাহিম, মা-লিকিয়াউ মিদ্দিন, ইয়া কানা’ বুদু উয়া ইয়া কানাসতায়িন, ইহদিনাসসিরাতাল মুস্তাকিম, সইরা ত্বাল্লাজিনা আন আম তায়ালাইহিম, ঘাইরিল মাগদু বিয়ালাইহিম, উয়ালাদ্দুয়াল্লিন,) এরপর যে কোন একটি সূরা পড়তে হবে।


যোহরের নামাজ- কিভাবে যোহরের নামাজ পড়বেন?


তারপর আল্লাহু আকবার বলে রুকুতে যেতে হবে। রুকুতে গিয়ে পড়তে হবে {সুবহানা রাব্বিয়াল আযিম (৩বার উত্তম, বেশি পড়লে ভাল)} সামিয়াল্লাহুলিমান হামিদা বলে রুকু থেকে উটতে হবে। আবার আল্লহু আকবার বলে সিজদায় যেতে হবে।


 (সিজদার নিয়ম হচ্ছে প্রথমে পায়ের পাতা থেকে কোমর পর্যন্ত সোজা রেখে দেহটাকে নিচের দিকে ঝুকিয়ে পরবর্তিতে হাটু ঝুকিয়ে প্রথমে নাক পরে কপাল মাঠিতে লাগানো) সিজদায় গিয়ে পড়তে হবে (সুবহানা রাব্বিয়াল আলা, ঠিক আগের মতো, ৩বার উত্তম, বেশি পড়লে ভাল) ।


আল্লাহু আকবার বলে সিজদাহ থেকে বসা অবস্তায় তার পর আবার সিজদায় যেতে হবে। আগের মতোই বলতে হবে। তারপর আল্লাহু আকবার বলে দাড়িয়ে যেতে হবে।


দ্বিতীয় রাকাত


আবার ঠিক আগের মতোই সূরা ফাতিহা এবং তার সাথে মিলিয়ে যে কোন একটি সুরা পড়তে হবে। তারপর রুকুতে যেতে হবে রুকু গিয়ে (সুবহানা রাব্বিয়াল আযিম) তারপর সামিয়াল্লাহুলিমান হামিদা বলে দাড়াতে হবে।আল্লাহু আকবার বলে সিজদায় যেতে হবে। সিজদায় গিয়ে ঠিক আগের মতোই (সুবহানা রাব্বিয়াল আলা) তারপর আল্লাহু আকবার বলে প্রথম বার এরপর দ্বিতীয় বার।


মাঝ বৈঠক


এখন দ্বিতীয় বারে দ্বিতীয় রাকাতে বসে পড়তে হবে। বসে পড়তে হবে (আত্তাহিয়াতু লিল্লাহি উয়াসসালাউয়াতু উয়াত্তাইয়িবাতি আসসালামু আলাইকা আইয়ু হান্নাবিয়ু উউয়া রাহমাতুল্লাহি উয়া বারাকাতুহু আসসালামু আলাইনা আলা ইবাদিল্লাহিস সুয়ালিহিন, আসহাদু আল্লাহ ইলাহা ইল্লাল্লাহু উয়া আসহাদু আন্না মুহাম্মাদান আবদু হুয়া রাসুলুহু) প্রতিয়মান আসহাদু আল্লআহ ইলাহা বলে শাহাদাত আঙ্গুলি উপরের দিকে ধাবমান করতে হবে।


তার পর দাঁড়িয়ে যেতে হবে তৃতীয় রাকাতে শুধু সুরা ফাতিহা পরে রুকু সিজদাহ করতে হবে। রুকু সিজদাহ করে আবার দাঁড়িয়ে যেতে হবে আবার সুরা ফাতিহা পরে রুকু সিজদাহ করতে হবে। এইভাবে চতুর্থ রাকাত পড়তে হবে


শেষ বৈঠক


চার রাকাতের সময় বসে পড়তে হবে (আত্তাহিয়াতু লিল্লাহি উয়াসসালাউয়াতু উয়াত্তাইয়িবাতি আসসালামু আলাইকা আইয়ু হান্নাবিয়ু উউয়া রাহমাতুল্লাহি উয়া বারাকাতুহু আসসালামু আলাইনা আলা ইবাদিল্লাহিস সুয়ালিহিন, আসহাদু আল্লাহ ইলাহা ইল্লাল্লাহু উয়া আসহাদু আন্না মুহাম্মাদান আবদু হুয়া রাসুলুহু) প্রতিয়মান আসহাদু আল্লআহ ইলাহা বলে শাহাদাত আঙ্গুলি উপরের দিকে ধাবমান করতে হবে।


(আল্লাহুম্মা সাল্লিয়ালা মুহাম্মাদিউ উয়ালা আলি মুহাম্মাদ কামা সাল্লাইতা আলা ইব্রাহিমা উয়ালা আলি ইব্রাহিম ইন্নাকা হামিদুম্মাজিদ)


(আল্লাহুম্ম বারিক আলা মুহাম্মাদিউ উয়ালা আলি মুহাম্মাদ কামা বারাক তা আলা ইব্রাহিমা উয়ালা আলি ইব্রাহিম ইন্নাকা হামিদুম্মাজিদ)


(আল্লাহুম্মা ইন্নি জালামতু নাফসি জুলমান কাছিরা উয়ালা ইয়াগফিরু জুনুবা ইল্লা আনতা ফাগফিরিলি মাগফিরাতাম মিন হিমদিকা উয়ার হামনি ইন্নাকা আনতাল গাফুরুররাহিম) বলে সালাম ফিরাতে হবে।


প্রথমে আসসালামুয়ালাইকুম উয়া রাহমাতুল্লাহ বলে ডান দিকে পরে বাম দিকে মস্তক ঘুরাতে হবে



Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url